স্বপ্নীল চক্রবর্তী

খোঁজ-

রোদচশমায় দুপুর দেখে এখনো বিভ্রান্ত হই রোজ,
কাশফুল দেখে অসুখে ভুগি।
বৃষ্টি পড়লেই ছাদে যাই;
তোমার জন্য কিনে নিই একটা সীজনাল আকাশ।
মধ্যবিত্ত দুপুরের বৈকালিক ছাদে,
অপঘাতে মৃতপ্রায় গোলাপের শরীরে অথবা
ধুলো জমে যাওয়া ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে,
এখনো তোমাকে খুঁজে বেড়াই।
ছোঁয়াচে কলমটাকে খুব ভালোবেসে এখনো বলি,
“তুমিই আমার আটপৌরে প্রেমিকা”

সময়-অসময়-


সুসময় পেড়িয়ে দুঃসময় এলে
সময়ে সময়ও যায় বদলে
এই যেমন বদলে গেছে চুলের রঙ, ঠোঁটের আকার
কথা শোনার ধরণটাও,
বদলে গেছে কোন কথার কোন মানে
বদলে গেছে তোমার ঠিকানাটাও!

পৃথিবীর সকল ডাকঘর ঘুরে কথাগুলো ফিরে এলো,
কোন কথা তাই পৌছাতে পারেনা তোমার কাছে,
নিঃসঙ্গতার মতো করে জড়িয়ে থাকা অন্ধকারে
কথাগুলো বুকের ভেতর পায়চারি করে!
তখন একটি দীর্ঘশ্বাস উড়ে গিয়ে শুকনো পাতার মতো
পড়ে থাকে গাছের নিচে!
তুমিই জানলে না, গাছ কি আর জানবে;
একটি দীর্ঘশ্বাসের মধ্যে অনেক না-বলা কথা থাকে!

রুপান্তর-


স্মৃতির বারান্দা থেকে দানা খুটে খুটে তুলি চড়ুইয়ের মতো ;
গোধূলির রূপগন্ধ পাখীদের থেকে বেশী আর কে জানে
ভোরের সবুজ ঘ্রাণ;
পাখীদের মতো আর কে ছড়ায় পালকে এমন মায়া;
ধারালো চঞ্চুতে বিষ !

মুঠোর ভেতরে রাখি ডানার আদর।
মুঠোর ভেতরে রাখি ঠোঁটের হিংস্রতা।

বিভাগ:তথন, Uncategorized

উচ্চারণ ওয়েব ম্যাগাজিন

কথাদের স্পর্ধা

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s