ভেড়ার গল্প

SmartSelect_20200228-190722_Gallery

একজন লোক তিনখানা ভেড়া কিনেছে কুড়ি টাকা কিলো দরে। এবার ভেড়ার সে রুরমা বানাবে সুরাইয়া আর কিছু কিমা। বাজারে গেলো মশলা পাতি কিনতে, কিনে ফেরার সময় দেখে কিছু লোক জটলা করছে ভিড় জমে আছে সবার মাথায় হাত! এবার সে পায়ে সে ভিড়টার সামনে গেলো, হাত টাত দিয়ে ভিড় একটু পাতলা করে ভেতরে ঢুকে দেখে কিছুই না! মাটিতে কিসের যেন একটা ছায়া পড়ে আছে! আর লোকজন তাই নিয়েই চিল্লামিল্লি মাথায় হাত। সে এমনি বেশ সাহসীও তেমন নয় ভীতুও নয়, তো আস্তে আস্তে ছায়াটার পাশে গিয়ে বুঝতে পারলো, ছায়া নয় মাটিতে চিড় ধরেছে জল বেরোচ্ছে, বালির মতোন হলদেটে মাটি আর এত্ত চড়া রোদে তাকে ছায়া মনে হচ্ছে। তখন সে করলো কি বাজারের ব্যাগটা যাতে মশলাপাতি ছিলো, সে সব নামিয়ে হাত খালি করে মাটিতে বসেই কান পাতলো। ভেতরে আস্তে আস্তে যেন কেমন শব্দ হচ্ছে হুঁস্ হুঁস্ শব্দ। সে তেমনই শুনলো আর কি! অন্য রকমও হতে পারে। তারপর সে ওখান থেকে উঠে পথে বাজারের ব্যাগট্যাগ গুটিয়ে বাড়ি চলে এলো। আসার পথে ওখানে যত ভিড় ছিলো যারা এতক্ষণ ভিড় করে ছিলো, তারা সব “কি হলো কি শুনছিলে, ওটা কি!” এমন হাজারো প্রশ্ন। লোকটা কিন্তু কোনোটার উত্তর দিলো না। সোজা বাড়ি এসে দরজা বন্ধ করে দিলো। সে বাড়িতে একাই থাকতো, সামনে একটা ধানবন কিছু জরুরী গাছের চারা আর অনেক অনেক উঠান। তো এমন হয়েছে তিনচারদিন কেটে গেছে, বাড়িটা এমনিতেই গ্রামের একদিকে ছিলো, লোকজন তেমন খোঁজও করতো না, আর সে নিজেও তেমন মিশুকে কিছু নয়। তবে যার কাছ থেকে ভেড়া কিনেছিলো সেদিন, সে কিছু একটা ভেবে বা কারণে এর সাথে দেখা করতে এসেছে। দরজা তো বন্ধ, ভেতর থেকে কোনো সাড়াশব্দ নেই। তো সে করলো কি বেশ অনেকক্ষণ ডেকে সাড়াটাড়া না পেয়ে গাঁয়ের লোক ডাকতে গেলো, হতেও পারে অসুখ বিসুখ যদি কিছু হয়ে থাকে। তো লোকজন বেশ অনেক লোকজন সব লাঠি দরজা ভাঙার জিনিসপত্র নিয়ে একসময় তারা দরজাটা ভেঙে ফেললো। ঢুকে দেখে ভেতরে কেউ নেই! না তা কি করে হবে! এমন ভেবে তারা খুঁজতে খুঁজতে দেখে মানুষটা ঘুমিয়ে পড়েছে ভেড়াগুলোও। একটা ভেড়া বুকে জড়ানো একটা পায়ের কাছে একটা মাথায়

আমরা নদীকে বাঁচাতে পারেনি তাই জল ছয়ে যায় জল মাড়িয়ে মাড়িয়েই আমরা হাঁটি, তাই শাপ লাগে না পায়ে পাও সয়ে যায়। এ অভ্যাসেই আমরা মানুষ মাড়াই মাড়িয়ে চলি চলে যাই

অহনা সরকার

#ফেব্রুয়ারী২০২০

#bangla, #banglalekha, #ahanasarkar, #uchcharan,

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s