বিভাগ: ২০২০

লীলাবতী

লীলাবতী! নামটা কি অদূর না! কেউ কথা বলতে বলতে গেলো জানলায় শুনলাম। অন্যেক কথা তাকে না জানিয়ে শোনা অন্যায় কিন্তু লীলাবতী! ছবি আঁকতে ইচ্ছে করছে জল রঙে জল পাতা ভর্তি ছিটিয়ে রঙীন ক ফোঁটা তারা নামবে তারপর ছুঁয়ে ছুঁয়ে নেওয়া ছবি আঁকতে ইচ্ছে করছে জল রঙ পাতা ভর্তি জলে ডুবিয়ে স্টেশনে বসে এখন ফাঁকা একটাই…

Read more লীলাবতী

অসালন

রাত। পুঞ্জীভূত অসালনে থমকে। রাত বললে ঠিক কি মনে আসে? অন্ধকার কালো এক জটাধারী তার খোঁপাটা পেঁচিয়ে বেঁধেছেন ক্ষোভ সহস্র পায়ে গতাধরের ছাতা হেঁটে চলেছেন। হাতের করমুন্ডুল টপকে জলের উথল সারা রাস্তা যতটা এসেছেন পথ নজরে অমিলান দূরে বা অদূরে দাঁড়ানো মানুষেরা নিজেদের দেখছেন পায়ে চোখ কেমন পরিবারহীন অথচ ওই তিনি হেঁটে চলেছেন ওই যে…

Read more অসালন

জনে

কূল তার কিণারার অধিক। মুগ্ধতা বিছানা লইয়াছে। তিনময় জ্বর তার আজ অধিক তিনদিন। এক বিদেশি সপ্তাহ যখন তখন তার আসা যাওয়া যখন যেখানে খুশি মুগ্ধ তরঙ্গিনী  রেখার তারটা দুহাতে কচলে ডাকি তাকে ডাকি তার তার নেই জিভে আসলে ভেজা এ মাসে বড়ই কম বৃষ্টি শাহেনসা মধুরিমার ছন্দে দেবতা দ্বন্দ্বে টিকে আছেন। কি সে দ্বন্দ্ব! হ্যালো…

Read more জনে

শুয়ারম্ভ

তার বৈবাহিক জীবন সেরে সরে ওই পাহাড়ের মাথাতে খাঁজ গড়েছে। দুজনার জীবন সাংসারিক জীবন। জল আনা জল খাওয়া। পাহাড়ের খাঁজ কেটে কেটে তারা জমিন আনে ফলানো শষ্য। রাগি বাজরার ডাল কখনও বা ফলানো মেম ওই দূরে আরো কয়েক পা পিছিয়ে তাদের থেকে বেশ কয়েক এই মূত পাহাড়ে বসে আমি এসব ভাবি। দেখি সামনে জল জমছে…

Read more শুয়ারম্ভ

র্শ

স্পষ্ট অ স্পর্শ ঝাপসা। কিছু মানুষ ময়ূর বিক্রি করতে বসেছেন। ছাই ছাই নীল কৌটোর রঙে সকালের। ময়ূরগুলোর পা বাঁধা প্রত্যেকটা স্বর আরো একটু দূরে ঝাঁকা ভর্তি মাথা এক বয়সী তস্কর তারা নিজেদের বহু বহু যুগের চেনা মাটির আগুনে পুতুলের রং আধো দেখা যায় আধো গায়ের হাতগুলো নীল পশলা ফাঁকের আড়াল পুকুর মাছ ধরা চলছে। সাদা…

Read more র্শ

ডাক

আমার গায়ের ওপর কড়ে আঙুলের ছাপ আমার গায়ে গাঙে কোমরে কনে ডাক কি চলে যাচ্ছে তাকে পাশে বসালাম ডাক গাঁয়ের ওপর টুকটুক হাঁটি গাঁ কথা বলে চলা পথ পাশে হাঁটি হাঁটি সাইকেলওয়ালা আর তার মুচোর দোকান জুতোটা চটির সাথে কষে বেঁধেছে। এখন যাওয়া যাওয়া পরনিতাই গোপাল ছন্দে গান বাঁধতে বাঁধতে লোকটা ছুটে গেলো ওই বাস…

Read more ডাক

সব

ছায়ার মতোন উড়ে চলা পাখিটা ঝাপসা পাতাটা ঠিক তখনই পড়ল ওই আবার আর একটা ঠিক ছায়ার ওপরে বাকি শব্দগুলো অন্তু বাইকে যাচ্ছে কেউ লম্বা চওড়া হাত বাইক মাথা নিচু করে সামনে ভাবছি যে পাখিটা বসে কাক! লম্বা দাঁড়া বেশ পা দুটো ওরা ঝগড়া করে ওঠে বাকিরা ছাতার সব অহনা সরকার #জানুয়ারি২০২০ #bangla, #ahanasarkar, #uchcharan,  #banglalekha,

Read more সব

ব বলছে। বাকিটা ঝাপসা

প্রথম সিন  কতগুলো দূরন্ত ঘোড়ায় করে কিছু দূরন্ত যুবক এসে থামলেন, মাঠের একটা প্রান্ত বেশ ঢালু, স্কটল্যান্ডের তরকারি ক্ষেতের মতো দূরে বেশ ঝাপসা গুণানীক পাহাড় দেখা যাচ্ছে তারপর দাঁড়িয়ে আছেন তো দাঁড়িয়েই আছেন। শব্দক্ষণ নোড়া নাড়ানাড়ি থামা সব নিঃস্তব একেবারে। স্কিনের কাছে মুখ নিয়ে গেলে বোধহয় তাদের নিঃশ্বাস পড়ার শব্দও বা হাত পা নাড়া! কারণ…

Read more ব বলছে। বাকিটা ঝাপসা